নামাজের স্বাস্থ্য উপকারিতা

নামাজ হল ইসলাম ধর্মের প্রধান উপাসনাকর্ম। প্রতিদিন ৫ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করা প্রত্যেক মুসলমানের জন্য অবশ্য পালনীয়। নামাজের মাধ্যমে একজন মুসলমান সৃষ্টিকর্তার আনুগত্য প্রকাশ করেন। এই নামাজের রয়েছে নানা স্বাস্থ্য উপকারিতা। ইসলামি চিন্তাবিদদের মতে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ শুধু মানুষকে কুপ্রবৃত্তি থেকেই দূরে রাখে না, এটা শরীর ও মনকে প্রফুল্ল রাখে। নামাজ অত্যন্ত উত্তম ব্যায়াম। মানুষ যখন মন দিয়ে নামাজ পড়ে তখন তা মেডিটেশনের (ধ্যান) কাজ দেয়, যা মনকে স্থির করে। চিন্তাশক্তি বৃদ্ধি করে। এছাড়া নামাজে হাত-পাসহ শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ-প্রত্যঙ্গগুলো যেভাবে নড়াচড়া করা হয় সেটা অত্যন্ত উত্তম ব্যায়ামের কাজ দেয়; বিজ্ঞানও তা সমর্থন করেছে।

read more

সূরার শুরুতে ‘বিসমিল্লাহির রহমানির রাহিম’ নাজিল হয়েছে যে কারণে

‘বিসমিল্লাহির রহমানির রাহিম’ -এর অর্থ পরম করুণাময় অতিশয় দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।
সুরা তাওবা ব্যতীত পবিত্র কোরআনে অবতীর্ণ সকল সূরার শুরুতে ‘বিসমিল্লাহির রহমানির রাহিম’ রয়েছে।
কিন্তু কেনো সুরার শুরুতে বিসমিল্লাহির রহমানির রাহিম অবতীর্ণ করা হয়েছে- এর কারণ সম্পর্কে হযরত ইমাম আবু হানীফা [রহ] এবং মদিনার অন্যান্য ফোকাহায়ে কেরাম বলেছেন, মূলত ‘বিসমিল্লাহির রহমানির রাহিম’ সূরায়ে ফাতিহা কিংবা অপর কোনো সূরার অংশ বিশেষ নয় বরং বরকত লাভের উদ্দেশ্যে অথবা দুটি সূরার মাঝে পার্থক্য নির্ণয়ের লক্ষ্যে প্রতিটি সূরা বিসমিল্লাহ দ্বারা শুরু করা হয়েছে।

read more

এক নাস্তিকের তিনটি প্রশ্ন

এক নাস্তিক একজন আলেম কে বলেছিল , ৩টি প্রশ্নের উত্তর দিতে পারলে আমি মুসলমান হয়ে যাবো ।

প্রশ্ন ১: আল্লাহ কোথায় আছে ? আল্লাহকে আমাকে দেখান ?

প্রশ্ন ২: আল্লাহ নাকি জ্বিন জাতিকে জাহান্নামে শাস্তি দিবেন , কিন্তু জ্বিন জাতি তো আগুনের সৃষ্টি ..! তো আগুন কে আগুন দ্বারা কিভাবে শাস্তি দিবেন ?

read more

মুসা(আঃ) এর সময়কার একটি ঘটনা

হযরত মুসা (আ:) একবার আল্লাহ তা’আলার কাছে আরজ করলেন, হে-দয়াময় প্রভু! আমার উম্মতের মধ্যে কে সবচেয়ে’খারাপ ব্যক্তি আমাকে দেখিয়ে
দাও।

অদৃশ্য থেকে আওয়াজ এলো,ঠিকাছে আগামীকাল সকালে তুমি পথের ধারে বসে থেকো। যে ব্যক্তি সর্বপ্রথম এই পথ অতিক্রম করবে, সে ব্যক্তি-ই হলো তোমার উম্মতের সবচেয়ে’ খারাপ। হযরত মুসা (আ:) ঠিক সময়মত নির্দিষ্টস্থানে বসলেন। কিছুক্ষণ পর দেখলেন এক ব্যাক্তি একটি ছোট ছেলে কুলে করে তাঁকে অতিক্রম করলো। হযরত মুসা (আ:)তাকেদেখে মনে মনে বললেন, ওহ্ এইব্যাক্তি-ইআমার উম্মতের মধ্যে সবচেয়ে ‘খারাপ।.

read more

একজন কালো সাহাবি

আমাদের প্রিয় নবী হযরত মোহাম্মদ সাঃ এর একজন কালো সাহাবি ছিলো , সকল সাহাবির মধ্যে সেই বেশি কালো , কিন্তু নবিজীর ভালোবাসায় সর্বদা জীবন দিতে প্রস্তুত , সেও শাহসি সাহাবির মধ্যে একজন , প্রিয় নবি অনেক ভালো বাসতেন তাকে । ।_____ একদিন নবিজী বললো , কালো সাহাবিকে তুমি সারাক্ষণ আমার সাথেই থাক , তাই তোমার কাছে আমি কিছু জানতে চাই, নবীজীর কাছে মাথা নিছু করে বলল , হুজুর আমার জান হাজির আপনি শুধু বলুন কি জানতে চান , নবিজী বলল তোমার বিয়ের সময় হয়েছে , তুমি কি তার জন্য প্রস্তুত ।

read more

মৃত্যুর পূর্বে ৪ জন ফেরেস্তা যেভাবে জানিয়ে দেয় মৃত্যুর আগাম সংবাদ

হাদীস শরীফে বর্ণিত আছে, যখন মানুষের অন্তিমকাল উপস্থিত হয় এবং রূহ বের হবার সময় ঘনিয়ে আসে, তখন চারজন ফেরেশতা তার কাছে উপস্থিত হয়। সর্বপ্রথম এক ফেরেশতা উপস্থিত হয়ে বলবেন “আসসালামু আলাইকুম” হে অমুক! আমি তোমার খাদ্য সংস্থানের কাজে নিযুক্ত ছিলাম। কিন্তু এখন পৃথিবীর পূর্ব থেক পশ্চিম প্রান্ত পর্যন্ত অন্বেষণ করেও তোমার জন্য এক দানা খাদ্য সংগ্রহ করতে পারলাম না। সুতরাং বুঝলাম তোমার মৃত্যু ঘনিয়ে এসেছে হয়ত এখনই তোমাকে মরণ সুধা পান করতে হবে। পৃথিবীতে তুমি আর বেশীক্ষণ থাকবে না।

read more

জান্নাত দেখতে কেমন হবে

হযরত আবু হুরায়রা রাদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু হতে বর্ণিত, রসূল সাল্লাল্লাহু তায়ালা আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেছেন- জান্নাতের জমিন হবে ধবধবে সাদা এবং ময়দান হবে কাফুরের । এর চতুষ্পার্শে থাকবে বালির টিলার মত মিশকের দেয়াল এবং তথায় পানির নহর সমূহ
প্রবাহিত থাকবে।
{আত তারগীব ওয়াত তারহীব, বেহেশত-
দোযখ অধ্যায়, ৪র্থ খণ্ড, ২৮৩ পৃঃ, হাদীস নং
-৩৪}

read more

হাদীস ও বিজ্ঞান

১৪০০ বছর আগে রাসুল (সাঃ) এর বাণী আজ বিজ্ঞানীরা প্রমাণ পেয়েছে ! মুহাম্মদ (সাঃ) বলেছেনঃ “পুরুষের প্যান্ট বা কাপড় পায়ের টাখনুর উপর পড়তে হবে। অন্যথায় তারা জাহান্নামে যাবে।”
– (সহীহ বুখারী ৫৩৭১)

read more